দিলীপ ঘোষকে ঘিরে আক্রমণের চেষ্টা তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের।

আজ ভবানীপুরে যদু বাজারে দেবেন্দ্রনাথ রোডে বাড়ি বাড়ি ঘুরে প্রচার করেছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা বর্তমান কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানে সবাইকে লিফলেট দিয়েও জনসংযোগ করছিলেন। সেই সময় তৃণমূলের বেশকিছু কর্মী-সমর্থক তাকে ঘিরে ধরে তার বিরুদ্ধে কুরুচিকর শ্লোগান দিতে শুরু করে। সঙ্গে চলে বিজেপি বিরোধী এবং প্রধানমন্ত্রী বিরোধী বিভিন্ন স্লোগান।

সেখানে একটি করোনা টিকাকরণ সেন্টারের ঢুকে পরিস্থিতির খোঁজখবর নেন কিন্তু এতে পরিস্থিতি আরো উত্তপ্ত হয়। এরপরই দিলীপ ঘোষ কে ঘিরে ধরে আরও তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা রীতিমত আক্রমণ করতে উদ্যত হয়। দিলীপ ঘোষকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলার চেষ্টা করে তারা। তাঁকে টেনে হিঁচড়ে ঠেলতে ঠেলতে বাইরে বের করে দেওয়া হয়। দিলীপ ঘোষের নিরাপত্তারক্ষীরা তাকে আক্রমণকারীদের হাত থেকে বাঁচানোর চেষ্টা করে। তাতেও ক্ষান্ত না হয়ে পূর্ণ উদ্যমে মারধোর করার চেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা। শেষপর্যন্ত উপায় না দেখে দিলীপ ঘোষের নিরাপত্তায় থাকা জওয়ানরা আগ্নেয়াস্ত্র বার করতে বাধ্য হয়।

দিলীপ ঘোষকে নিরাপত্তারক্ষীরা বের করে নিয়ে আসার পর সেখানে থাকা হয় বিজেপি কর্মীদের মারধর করে তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। সে বিজেপি সমর্থকরা মাথা এবং কপাল ফাটিয়ে দেওয়া হয়। বিশেষজ্ঞদের মতে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা পাথানি তারা পূর্ণ উদ্যমে প্রচার করছে ভবানীপুরে তাদের উদ্যম ভঙ্গ করতেই এবার ভয় দেখানোর খেলাতে নেমেছে তৃণমূল কংগ্রেস।