শুভেন্দু অনুগামীকে সরিয়ে দেওয়া হল পৌরসভার পদ থেকে, জল্পনা তুঙ্গে

শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে রীতিমতো পারদ চড়ছে রাজ্য রাজনীতিতে। এই অবস্থায় মেদিনীপুর পৌরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর সদস্যপদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামী নামে পরিচিত প্রণব বসুকে। যা নিয়ে নতুন করে জলঘোলা হতে শুরু করেছে জেলার গরাজনৈতিক মহলে। প্রসঙ্গত দু দফায় মেদিনীপুর পৌরসভার পৌরপ্রধান পদের দায়িত্ব সামলানোর পর ২০১৮ সালে রাজ্য সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী পৌর প্রশাসক মণ্ডলীর সদস্য হিসেবে নতুন করে দায়িত্বভার পান প্রণব বসু। তবে সাম্প্রতিক নির্দেশিকা অনুযায়ী প্রনব বসুকে বাদ দিয়েই মেদিনীপুর পৌরসভা পরিচালনার জন্য তৈরি করা হয়েছে তিন সদস্যের প্রশাসকমণ্ডলীর। খড়্গপুর গ্রামীণের বিধায়ক দীনেন রায়কে মাথায় রেখে বর্ষীয়ান বিধায়ক মৃগেন মাইতি ও নির্মাল্য চক্রবর্তী পরিচালনা করবেন মেদিনীপুর পৌরসভা। এ প্রসঙ্গে সম্পূর্ণটাই প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত বলে বিতর্ক এড়ানোর চেষ্টা করেছেন অভিষেক পন্থী নামে পরিচিত নির্মল চক্রবর্তী। অপরদিকে প্রণব বসুর দাবি, দীর্ঘদিন দক্ষতার সাথে কাজ করার পরেও তাঁকে কেন সরানো হলো তা তাঁর কাছে পরিষ্কার নয়। তবে তাকে পদ থেকে সরিয়ে দিলেও তিনি যে বরাবরের মতো শুভেন্দু অনুগামী থাকবেন কার্যত তা পরিষ্কার করে দেন এদিন। তার কথায়, দলের সর্বোচ্চ নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হলেও শুভেন্দু অধিকারীকে অস্বীকার করা অসম্ভব তার পক্ষে। সব মিলিয়ে পৌর প্রশাসক মণ্ডলী থেকে প্রণব বসুকে সরিয়ে দেওয়ার ঘটনায় আড়াআড়ি বিভাজন তৈরি হয়েছে তৃণমূলের অন্দরে, এমনটাই মত রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।