বৈশাখীকে সমস্ত সম্পত্তি দান শোভনের! জোকারের মতো আচরণ করছে, তোপ ছেলের।



কলকাতার প্রাক্তন মহানাগরিক এবং প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায় যত না দলবদল বা রাজনৈতিক কারণে শিরোনামে আসেন তার থেকে বেশি শিরোনামে আসেন বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় এর সঙ্গে রসায়ন এর কারণে।

বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় এর জন্যই তিনি তৃণমূল ছেড়েছিলেন বলে মনে করেন রাজনৈতিক মহল, তারপর একই সঙ্গে বিজেপিতে যোগদান এবং দলত্যাগ সবই দেখেছে মানুষ। সিবিআই তাঁকে গ্রেপ্তার করার পর রাতে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় এর জেলের দরজায় দাঁড়িয়ে মনে হয় এখনও ভোলেনি বঙ্গবাসী!

কোন একটি সাক্ষাৎকারে বৈশাখী বন্দোপাধ্যায় বলেছিলেন কোন ছেলে বন্ধু খুঁজতে হলে সবাই যেন স্বপ্নের মত বন্ধু খুঁজে যে সব সময় সর্ব পরিস্থিতিতে তার পাশে দাঁড়িয়েছে। এবার শোভন চট্টোপাধ্যায় এমন একটি সিদ্ধান্ত নিলেন যে সেটাও কি বন্ধুত্বের দান কিনা ধন্দ্বে সকলেই। শোভন বাবু তার সমস্ত সম্পত্তি তার বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় কে দান করে দেবে বলে ঘোষণা করেছেন এবং পাওয়ার অফ অ্যাটর্নি ক্ষমতাও দিয়েছেন তাঁকেই। বউয়ের সঙ্গে সমস্যা থাকতেই পারে কিন্তু ছেলে মেয়ে থাকতে এরকম সম্পত্তি দান দেখে অবাক তার পরিচিত থেকে শুরু করে সকলেই। শোভন বাবুর এই সিদ্ধান্ত শুনে ওনার ছেলে বলেন যে বাবা জোকারের মতো আচরণ করছেন। সঙ্গে আইনি লড়াইয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন শোভন বাবুর পুত্র।

কত রঙ্গ দেখি এ বঙ্গে— কথাটা যেন বারংবার প্রতিফলিত হচ্ছে শোভন-বৈশাখী রসায়নে।