Breaking! রাজ্যসভা থেকে ছয় জন তৃণমূল সাংসদ সাসপেন্ড

বাদল অধিবেশনের শুরু থেকেই পেগাসাস কাণ্ড নিয়ে স্তব্ধ লোকসভা ও রাজ্যসভার অধিবেশনে। বিরোধী দলের নেতাদের ওপর আড়িপাতার অভিযোগ নরেন্দ্র মোদি এবং অমিত শাহকে সংসদে এসে সাফাই দেওয়ার দাবি জানাচ্ছে বিরোধীরা। দফায় দফায় মুলতুবি হয়েছে অধিবেশন। প্রতিদিন রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে বিরোধীরা একত্রিত হয়ে সকালের জল-খাবারের সময় সারা দিনের কর্মসূচি আলোচনা করেন এবং সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কাজ করে বিরোধীরা।

কিছুদিন আগে পেগাসাস কাণ্ড নিয়ে তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব রাজ্যসভায় তার বক্তব্য পেশ করতে গেলে তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন তার কাগজপত্র ছিঁড়ে দেন। ফলস্বরূপ পুরো বাদল অধিবেশনের জন্য তাকে রাজ্যসভা থেকে নিলম্বিত করা হয়েছে। আজ রাজ্যসভার ডেপুটি স্পিকার হরিবংশ নারায়ণ সিংয়ের উপস্থিতিতে তৃণমূল সাংসদরা ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।

ক্রমাগত সংসদের অধিবেশনে বাধা সৃষ্টি করা, অধ্যক্ষকে অপমান এবং প্ল্যাকার্ড নিয়ে হট্টগোল করার অভিযোগে নিয়ম ২৫৫ অনুযায়ী রাজ্যসভা থেকে আজ সারাদিনের অধিবেশন থেকে তৃণমূলের ৬ জন সাংসদকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। সাংসদরা হলেন দোলা সেন, শান্তা ছেত্রী, আবির রঞ্জন বিশ্বাস, অর্পিতা ঘোষ, মৌসম নূর এবং নাদিমুল হক।