মোহনবাগানই ভারতসেরা

বাবা দিওয়ারার বুলেট শট টা জাল কাঁপিয়ে দেওয়ার পর কল্যাণীতেই সেদিন সবুজ মেরুন উতসব হয়েছিল। ৩৯ পয়েন্টে কিবুর মোহনবাগান সবার ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে গিয়েছিল।।সেদিনই চুটিয়ে সেলিব্রেশন সেরেছিল আপামর মোহন জনতা।। গঙ্গাপাড়ের ক্লাব তাবু তে ট্রফি আসা ছিল শুধু সময়ের প্রতীক্ষা। কিন্তু বাদ সেধে ছিল মহামারি কোভিড-১৯।। অবশেষে সমস্ত প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে সরকারিভাবে সবুজ মেরুন দলকে ভারত সেরা খেতাব দিয়ে দিল অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন । করোনা প্রকোপের মাঝেও উতসবে মাতল সবুজ-মেরুন সমর্থকরা। করোনার প্রকোপে লকডাউন ৩ রা মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। সেই জন্য এবার বাঁধা পড়েছে ফুটবল খেলাতেও। বাতিল হয়েছে আই লিগের বাকি ম্যাচ গুলো।।তাই শনিবার বিকালে এ. আই এফ এফ এর কর্তারা ভিডিও ককনফারেন্সে মিটিং করেন এবং সিদ্ধান্ত নেন যে, নিয়মমত মোহনবাগানকেই আই লিগ জয়ী ঘোষণা করা হয়।। মোহনবাগানের সচিব সৃজয় বসু ধন্যবাদ জানিয়েছেন আরো আটটি ক্লাব কে। তবে এর মধ্যে ইস্টবেঙ্গল কেও ধন্যবাদ জানিয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলকে খোঁচাও দিয়েছেন বাগান সচিব।। কারণ ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের তরফ থেকে ব ফেডারেশন কে চিঠি দিয়ে লিগ পরিত্যক্ত করার আর্জি জানিয়েছেন। বাধা দিয়েছেন মোহনবাগানের খেতাব জয়ে। ইস্টবেঙ্গল শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার অবশ্য অভিনন্দন জানিয়েছেন মোহনবাগান ক্লাব কে। মোহনবাগান কে বাদ দিয়ে বাকি সব টিমের মধ্যে আর্থিক পুরস্কার ভাগ করে নেওয়া হবে। তবে এতে অবশ্য ইস্টবেঙ্গল ক্লাব বিতর্ক প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও মিটিংয়ে আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।পরের বার বয়সভিত্তিক (যেমন অনূর্ধ্ব ১৫ থেকে অনূর্ধ্ব ১৮) মেয়েদের অনূর্ধ্ব ১৭ হতে হবে এবং দুটো টিম কে ফাইনাল এ তোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

১৯/০৪/২০২০ রিপোর্ট- শিল্পা চ্যাটার্জী

এডিট- উজ্জ্বল সরখেল

চিত্র সূত্র- গুগল